জলপরি

এক ছিল এক কাঠুরে । সে ছিল সৎ এব০ প্ররিশ্রমি । একদিন সে এক গহীন বনে কাঠ কাটতে যাই । সে একটি জলাষয়ের পাছে গাছ কাটতে লাগে ,হটাৎ তার হাত থেকে তার কুঠার জলাশয়ে পরে যায়। জলাশয়টি ছিল অতন্ত্য গভীর । তাই কাঠুরে জলাশয়ে নামতে পারছিল না । কোনো পথ না পেয়ে কাঠুরে জলাশয়ের পাছে বসে কাদতে লাগল । সেই জলাশয়ে ছিল এক জলপরি । কাঠুরের কান্না শুনে জলের উপরে ওঠে আসে এব০ কাঠুরেকে প্রশ্ন করল তোমার কী হয়েছে? কাঠুরে সব কিছু খুলে বলল!জলপরি বলল আমি তোমার কুঠার খুজে এনে দিচ্ছি এই বলে জলপরি জলাশয়ে ডুব দিল এব০ কিছুক্ষণ পর একটি সোনার কুঠুর নিয়ে এল এব০ কূঠারটি দেখিয়ে বলল এটা কী তোমার ? কাঠুরে বলল না. জলপরি আবার জলাশয়ে ডুব দিল এব০ একটি রুপার কুঠার নিয়ে এল এব০ কাঠুরেকে বলল এটা কী তোমার . কাঠুরে বলল না । এবার জলপরি এবার একটি লোহার কুঠার দেখিয়ে বলল এটা কী তোমার । কাঠুরে বলল হ্যাঁ । জলপরি কাঠুরের সততা দেখে মুগদ্ধ হয় এব০ কাঠুরেকে সোনার ও রুপার কুঠার দুটি উপহার দিল ।
Added This into Wordpress (24/09/2021) 132 Views
যে কোন সমস্যায় প্রশ্ন করে সমাধান নিন এবং অন্যের প্রশ্নের উত্তর দিয়ে প্রতিদিন ১০০ টাকা উপার্জন করুন (বিস্তারিত)

Article Categories

Read More Load More And Share Your Knowledge
© 2022 LoadX.Xyz